ঘোরালোকবিতা- ৮

দূর্বাদল মজুমদার



লেখা কেউ পড়ে না। মনে রাখে না।
অথবা সূর্য উঠত দুধের বাটিতে, মা এর।

মোড়লেরা বলে, চন্দ্র-সূর্য উঠত না,
যেভাবে মানুষ খুন হলে
আমরা কেবল রক্তের পরিমান নিয়ে
কথাবার্তা বলি।

কী এমন সাঁকো বাঁধা লেখকে পাঠকে!
মনে মনে তরঙ্গ বলতে এই নিকেল-কোটেড
ক'টি অক্ষর।
যেভাবে রেটিনা ফুঁড়ে বেড়াতে যায় সে নতুন দেশের উইলো বনে।

সেখানে শব্দের অর্থ নামক গাভী চরে
আর টাঁড়বাসিয়া! টাঁড়বাসিয়া! বলে হাঁক দেয়
শরকাঠের টুপি পরা একলা কাউবয়।

কাকে খোঁজে সে! দুধের-বাছুর, আহা

অলংকরণঃ সিদ্ধার্থ মুখোপাধ্যায়

ফেসবুক মন্তব্য