ফুলেরা এবং স্রোতস্বিনী জানলা

অর্ঘ্য রায় চৌধুরী



কখনো বলিনি আমি চিনে গেছি ফুল
জলের গভীরে ছিলো স্রোত স্রোত খেলা
ফুলেরা বিকেল বেলা বেলুন শহরে
পুরনো সুরের কথা বলে যেত শুধু

সে ফুলেরা সুর খুঁজে খুঁজে চৌকাঠে
লন্ঠনে আলপনা এঁকে চলে যায়
বেলুন শহরে এক অশ্বশকট
ফুলেরা কোথায় গেলো গান গেয়ে ফেরে

স্রোত থেকে উঠে আসি বিছানার কাছে
জানলায় নিঃঝুম হাওয়া দোল খায়
ফুলেরা ছবির মতো দূরে যেতে যেতে
পাপড়ি খসিয়ে কিছু রসিকতা করে

কখনো বলিনি আমি চিনে গেছি ফুল
কখনো বলিনি আমি চিনে গেছি স্রোত
কখনো ফুলেরা যদি স্রোতে ভেসে আসে
জানলায় হাওয়া এসে মেপে রাখে জল।

অলংকরণঃ অর্ঘ্য দত্ত

ফেসবুক মন্তব্য