ক্রমশ

নিলয় নন্দী



লোভ আমাকে উদাসীন করে তোলে। আমি জিভ বার করে বলি, দাও, দাও অমৃতকলস উপুড় করে। ঠোঁটের দু প্রান্ত বেয়ে নামে তরুক্ষীর কষ। স্বাদ শ্রাবণাক্ঠ। এ সময় এক পশলা বৃষ্টি এলে উপচে পড়ে অলিন্দের খানাখন্দ। যে লোভ আমাকে মৌচাকের দিকে টেনে নিয়ে যায়, তার হুল দংশনে এক একটা আত্মহত্যা বা মুঠো মুঠো স্লিপিং পিল গড়িয়ে পড়ে রাস্তায়। পারদ বলের মত পিছলে যায় পরমার্থ। ত্রিপল উড়ে যায় স্নানঘরেরॠআমি অনর্থক তোয়ালে নিয়ে বসে থাকি। শিশ্ন মুছি পরম সোহাগে।আর বৃষ্টির জল জমে বার'দালানে...< br />
ক্রমশ পোশাক ওঠে শরীরে। ক্রমশ সভ্যতা।

অলংকরণঃ সিদ্ধার্থ মুখোপাধ্যঠ¾à§Ÿ

ফেসবুক মন্তব্য