সিস্টেম

জ্যোৎস্না রহমান




একটি কাঠের টুকরোকে মাটিতে পড়ে থাকতে দেখে
পারাপারের গল্প লিখতে বসে জল
আর উইপোকা দাঁতে ধার দিতে থাকে।

পকেটে বিভেদের রসিদ রেখে
যে দেশকে বিতরণ করে ঐক্যবোধ
তার পায়ের কাছে লুটিয়ে পড়া অজ্ঞতা
উইপোকার ধর্ম চেনেনা।

ধর্ম আর কর্ম তৎপর হয়ে মানুষের মন কর্ষণ ক'রে
পুঁতে দেয় বিষাক্ত চারা।
ক্রমে কালো জঙ্গলে ঢেকে গেলে
রাত্রিযাপনে অভ্যস্ত হয় বিভেদ
তখনও রক্তাক্ত আলো খুঁজতে থাকে
অবক্ষয়ের শেষ ঠিকানা।

কারণ, একমাত্র সূর্যই জানে
রাতের শেষ প্রান্তে সে জন্ম নিলেই
কচি গাছের গোড়ায় হেলান দিয়ে
পারাপারের গল্প লিখতে বসবে জল।


অলংকরণঃ অরিন্দম গঙ্গোপাধ্যায়

ফেসবুক মন্তব্য