খুঁজিস শুধু তুই, ঘুম

মালিপাখি

খুঁজিস শুধু তুই

সবেদা গাছ রূপোলি নাচ ফুটলো বেলি জুঁই
কেমন করে মাছরাঙা হোস বলতে পারিস তুই

তোর বুকে কি ঝুমঝুমি ভোর নাচলে বাতাস বয়
ভুবন ডাঙায় ফিরবো যখন করবি পরিচয়

নীল পরীরা ওড়ায় যখন রাতের তারা হাঁস
হৃদয় পুরের পথিক আমি কার কাছে খোঁজ পাস

পাতায় পাতায় রঙ ঢালি রোজ নামতা শেখানোর
এই কথাটাও ভাবলে বুঝি নেই অজানা তোর

সবেদা গাছ রূপোলি নাচ ফুটলো বেলি জুঁই
কেউ না ভালোবাসুক আমায় খুঁজিস শুধু তুই

ঘুম

আমি দুললাম মেঘনা পাতায়। আমি ডুবলাম জলে ।
গান গেয়ে যায় কবিতা দেশ । গান গেয়ে পথ চলে ।

বাউল সাগর আগুন দিলেন । হেসে বললেন ওহে,
গুন টেনে যাও । গুন টেনে যাও । শুধু বাঁচবার মোহে,

ছবি আঁকলাম । উড়িয়ে দিলাম । উড়তে উড়তে তারা ---
দুলিয়ে দিলো আমার বুকে আকাশমনির চারা --- !

আকাশ আমার । আকাশ আমার । হাজার বছর শেষে ,
কেউকি নেশায় পড়বে ছবি ? কেউকি হাওয়ায় ভেসে ---

বলবে আবার ও শিউলি দ্বীপ ! তোমায় খোঁজা বাকি !
ভাবতে ভাবতে পাথর পুরের পথিক হতে থাকি !

পাথরে রাত , পাথরে রাত , পাথরে রাত পড়ে --
কিশোরী তুই জাগাস আমায় হাজার বছর পরে -- !

ফেসবুক মন্তব্য