দুটি কবিতা

সুপ্রিয় বন্দোপাধ্যায়

ছেঁড়া জামা

আমি বললাম জল
তুমি বললে মেঘ
আমি বললাম তারা
তুমি বললে রোদ
আমি বললাম আকাশ
তুমি বললে ঘট
পিঠে চিটে যাওয়া জামা বলবো আমি, তার আগেই
তুমি বলছো সমুদ্র
এরপর তুমি ময়দান বলছো
আর আমি ময়দানব হয়ে যাচ্ছি
গাছের পর গাছে পালকের কুটোয়
লাল লাল হাঁ
চিনি দেবো নাকি দানা
ভাবতে ভাবতে জামা ছিঁড়ে পেতে দিচ্ছি
হেঁটে যাচ্ছি মাথায় ছাতা মেঘ

এবার তুমি বললে জল
আমি তোমায় কান্না দিলাম



বৃত্ত

টলোমলো আলের ওপর
আস্তে সাইকেল
বিকেল হয়ে এসেছে খুব
পৃথিবী ঘুরছে, কথা শুনছে না

গাছের ওপর ঘুমোনো প্র‍্যাকটিস করা যায়
ধুলোয় ফুলিয়ে নেওয়া যায় চুল
কাদামাটির মধ্যে মাছ ধরার বাহানা
ছোটোবেলার এক্সটেনশন
সরু শিকের বাঁকানো ডগা দিয়ে
লোহার রিং চালিয়ে ফিরছি
কালসীমার বাইরে যে যে শব্দগুলোকে পাঠিয়েছিলাম
তারা উদগ্রীব হয়ে দেখতে চাইছে

আমি তিনটে জিনিস একটি কৌটোর ভেতর পুরে ঝাঁকাচ্ছি

ফেসবুক মন্তব্য