গুপ্ত-পুরাণ

সুমনা পাল ভট্টাচার্য

চৌকাঠের ওপারে ওত পেতে বসে আছে নগ্ন ক্ষুধা
ওর সারা শরীরে তোর গন্ধ...
যে রাতে, চাঁদ ঋতুস্রাব শেষ করে রীতিমত সঙ্গম-সম্পূর্ণা হয়,
সেইসব রাতে আমার অনাবৃত স্তনে,
গোপন সুড়ঙ্গে বসন্তের গুটির মত
দগদগে হয়ে তোর তীব্র কামড়গুলো ফুটে ওঠে...

ঠিক সেইসব রাতে নিজের ঈশ্বরী অবয়বের কাছে হাঁটু মুড়ে বসি...
তারপর, তোর থুথু, লালা, ঘাম লেহন করতে করতে ক্রমশ: মানবী হয়ে উঠি...

ঘুম এসে যায় যে কখন, বুঝিই না...
শুধু, আধছেঁড়া ভোরের পাশে লুটিয়ে থাকে পরজন্মের নারীত্বের ঠিকানা।।

ফেসবুক মন্তব্য