নদীর জলে আড়াল

সুরজিত সুলেখাপুত্র


আগুনে ঝলসে মারা হয়েছিল তাকে।
দেহ পড়ে আছে। চোখ খোলা।
সেখানে চাঁদের ছায়া, জলভরা
শান্ত ফোস্কার মত সেই চাঁদ ফেটে
জ্যোৎস্না ঝরছে চারিদিকে


আমাদের ভারি ভালো লাগে
ইঁদুরের মত নিঃশব্দ এই বেঁচে থাকার ধরণ-
অনবরত পুরোন ফাঁদ কেটে নতুন ফাঁদে ঢুকে পড়ার অভ্যেস
নতুন কিছুই নয়, শুধু গোলাপি আকাশের নিচে
বেড়ালের চোখের মত সজল এক মৃত্যু
অল্প অল্প আদর করে যায় আমাদের


নদীর জলে আড়াল

তাকে সরাই
দু’চার কণা জীবন
ফেণার মুখে চলকে ওঠে শুধু

মৃত্যু ভেসে চলে


শেষে জগতে আর একটাই গাছ রইল
তার
আগুনে পোড়া শিকড় চলে গিয়েছে পৃথিবীর গর্ভে
আর পাতা-খসে-যাওয়া সমস্ত আঙুলে
সে আঁকড়ে ধরেছে
মহাকাশের আলো মাখানো শূন্যতার এই চাদর


ধূপের গন্ধ, যেন স্মৃতি...
তাতে জলপড়ার শব্দ
এখন
মুছে নিয়েছে বর্তমানকাল

ফেসবুক মন্তব্য