হিজলকন্যার প্রেমে

সঞ্জয় চ্যাটার্জী



বললাম অন্য রূপে চাই।

মেলে দিলে ভিজে কোঁকড়ানো চুল ছাদের কার্নিশে। 
দু চোখ মুদেছিলে, তখন গৌরবর্ণ আকাশ। 
যোগমুদ্রায় তন্বী রজ্জু শরীর, ধনুকরূপী।
ধারালো স্তনবৃন্ত তীরের ফলার মতো,
আকাশের পানে খুঁজছে আমার হৃদয়।

জল ঝরে যায় যেমন বৃষ্টির পর মেঘলা কার্নিশ ছুঁয়ে,
শ্যামতরুছায়া মাখে অনাবিল চুলের জল। 
পুরোনো ছাদ, শ্যাওলা দেয়াল, শিরশিরে হাওয়া...

সেই দুপুরে নরম শীতে ছাদ জুড়ে আছে অপ্সরা। 
আমি ধ্যানভঙ্গ যোগী –
মজেছি গৌরীর বিচিত্র মোহনীয় মুদ্রায়,
আর অন্তরে প্রেতচ্ছায়া…

ফেসবুক মন্তব্য