জিও অন্তর বাস

শান্তনু বেজ

নুনপাহাড় তফাতে অনেকক্ষণ ঘাম
প্রার্থিত নিম্নচাপে কোথাও রেনফরেস্ট

এই পূর্বাভাস যখন
ছাদে ছুটে যাই শুকনো অন্তর্বাস নিতে

অন্তর্বাস একটা একলা লোকের ক'জন
ওর রঙ নিয়ে
একটা ধুন্দুমার দোল
শান্তিনিকেতন ছাড়া আনন্দনিকেতন স্কুল
জুনিয়রে জোট বাঁধা
সিনিয়রে জোনাকির জীবন
একই রঙ একই রাত একই দপদপ
একই শাঁখিবাওলা
একটু সময় নিয়ে লেখা
সূর্যাস্তের শান্তি প্রসঙ্গ
এখনও দীর্যদিনের ছাদ যাই
যেখানে
চিরকাল তুমি অন্য আঙুল বিষয়ক
প্রজাপতির রঙ কেটে খুশির পেন্সিল
জানো
ভিজে অন্তর্বাস আজকাল কাজে লাগে না
পরতে পারি না পড়তে পারিনা

আজকাল স্কেচে অন্তর্বাস আসে
অন্তরঙ্গ কি ঘেঁটে যায় সরে যায় গহীনে যায়

বুড়িগঙ্গার স্কেচে ভাসে ভিজে অন্তর্বাস
সাইনবোর্ড স্পন্সরে অন্তর্বাস
চোখ আঁকলে ওর রঙ আসে

কেন যে জলীয় সুরক্ষায় এই পোশাক
ও জল যে নরম নয় আন্তর্জাতিক কি

শুধু রবিবারের ব্রীজ আঁকতে গেলে
হেরে যায় সে
ফিরে আসে শীতের বাড়ি পাঠকের রাত
দোলের নাভি আর একটি দেড়লাখ ইচ্ছে

সেই আনাড়িতে
এক হিল্লোল বেজ আমি
স্কেচে রঙ ওড়াই তুলি ঝড়াই
শুধু মার্জিন টেনে রাখিনা অন্তর্বাস বরাবর

ফেসবুক মন্তব্য