প্রতিটি বিষাদ থেকে

মৌসুমী চক্রবর্তী ষড়ঙ্গী



ক্রুদ্ধতায় হাতের মুঠি তুলে তুমি
বিষাদ ছিটিয়েছ যতবার , আমি
হাসিমুখে জড়ো হাতে নতজানু হয়ে
গ্রহণ করেছি , ঐ শান্তিজল ।

ভ্রুবিভঙ্গের তীর্যক চাহনিতে বহুবার অবিচল
রেখাঙ্কন হয়ে পড়ে থেকেছে অনন্ত ধীরতা ।
আত্মপ্রত্যয় ও অহংকার আকাশ ছুঁলে
হঠকারিতায় পুড়েছে পিপীলিকার ডানা ।

তবে নির্বোধ বাক্য বিচলিত করেছে কখনও বা
নখ থেকে মাথার চুল জ্বলেছে দাউদাউ শব্দে।
কপাটে খিল দিয়ে সঞ্চিত ধৈর্য্যের পরীক্ষায় ___
দেখতে চেয়েছি উত্তরণ , একটা সুহৃদ্ সকাল ।

ফেসবুক মন্তব্য