ইতিহাস

স্নেহাংশু বিকাশ দাস



আদিম অন্ধকারের চিহ্ন আছে অস্থির দুই চোখে। আছে নিরুচ্চার কয়েকটা ঢেউ। হিজলডাঙার মাঠ। আর ক্রমশ জেগে ওঠা জ্যোৎস্না ধোয়া মাটি। নির্বিকার চরাচর জুড়ে ইতস্তত ছড়ানো লজ্জাচিহ্ন, একপেট খিদে।

ক্লান্ত ডানায় ভর করে পাখিরা উড়ে যাচ্ছে শূন্যের দিকে। পেরিয়ে যাচ্ছে নিঃসঙ্গ ফেরিঘাট। বৃক্ষজন্ম। মর্ত্যপৃথিবী। ধূসর এক রাত্রির পথে পা বাড়ায় গোটা জীবনের সুখ। স্তব্ধ বুকের মাঝে শুকিয়ে যাচ্ছে সমাজ নামের এক ভ্রষ্ট অহংকার।

সাজানো কিছু শব্দ দিয়ে এবার তৈরি হবে নিঃসঙ্গতার ইতিহাস।

ফেসবুক মন্তব্য