নওরোজ (দোধক)

পীযূষ কান্তি বন্দ্যোপাধ্যায়


খাপখোলা রাত সেকি সাপ নাকি অঞ্জন?
রাগ লাগে বাস্তুতে। খতরা না খঞ্জ
কার তৃষা চন্দনচর্চিত পাত্রে?
কোন দেশে চাঁদ যাবে নির্জনে সাঁতরে?
ঘূত্‍কারে ভয় জাগে, ঘোমটাতে চনমন
কোন চোরা ভুখ ঢেকে চম্পকে জন্ম
দেয় স্মৃত অগ্নিভ শংখিনী বৃক্ষ?
ঝর্ণাতে ঢেউ তোলে চাঁদকুড়ো নিক্কন।
অন্তরে জাগ্রত তিক্ত নগন্য
জিন্দেগী ক্ষীনজীবি জলসা, না জন্নত?
আজ রাতে কিসমতে এই আছে, ময়লা
জাম, সাকি, আর কিছু শর্মিলি সয়লাব
কার জানাজার সাথে পথ চলে, দশ রথ
রফতারে নিন্দিত কার বুনো হসরত্‍?
কার তীরে কোন বুকে খাল করে সৈয়দ
আলগোছে কোন খুনে দ্যায় চাপা বইও
কোন সুরে গান কাঁদে অম্বরে চুম্বি
নিন্দিত কার ব্যথা, ইচ্ছারা জুমবিশ
আজ নিশি ভিনদেশি প্রীত্, অপরূপ কেশ
স্বর্ণালী চুমকিতে যায় ঢেকে চুপকে
আজকে কি সঙ্কেতে উথলালো অর্ণব
কোন দুখী পেট হতে জন্মালো কর্ণ
কোন সুত বস্তিতে কান্নারা চঞ্চল
কোন শোকে ঘাম মোছে বিদ্রোহী অঞ্চল?
আজ মনে জিজ্ঞাসা, আসবে কি মুক্তির
ডাক দিতে সেই হোতা, সস্নেহে মুখটি
গর্বিত হাত দিয়ে ঠিক তুলে ধরবে
আসবে কি এই ক্ষণে পথ ভুলে দরবেশ?
ধুম্বলে ঘুম বলে - কোন কথা কও রোজ
ওই দ্যাখো, আজ সাঁঝে ডাক দিলো নওরোজ।
পশ্চিমে মিশকালো মেঘ ডাকে প্রাণপাত
চুপ করে থাক, শুধু বৃংহণে কান পাত।

ফেসবুক মন্তব্য