পাঁচটি কবিতা

সুবীর সরকার


১ চশমা
ভাঁজ করা চশমা। চশমা কি নির্জন
হতে জানে! আদতে আগ্রাসন,
যেভাবে লোকদেবতা নাগরিক হয়ে
ওঠেন।

২ ভাষাদিবস
চুমু নয়। চুমু বদলাচ্ছে চুমুকে।
মেঘ এসে বৃষ্টি দিয়ে যায়
আমরা কুয়াশায় ঢেকে রাখি
যাবতীয়

৩ পেঁয়াজখেতের গল্প
চাঁদের আলোয় পেঁয়াজখেত। গসপেল থেকে
খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে তোমাকে তুলে আনি
হাজার হাজার চা-চক্র আমাদের
সাঁতার জানি। তবু ভয়, ডুবে যাবো না
তো

৪ বৃত্তান্ত
বৃত্তান্তে যাবো না বরং গন্তব্যে
পৌঁছই
ফের নীরবতা।
উনুনে গুঁজে দেব
টুপি

৫ শিরোনামহীন
সর্ষে বনে বিকেল ডুবছে আর আমি বিকেলের
দিকেই
হাঁটতে থাকি। যেন বা স্তব্ধতা, বাঁশির শব্দ!
কান্নাকে প্রতিরোধ করি, শরীরে হলুদ মাখি
আয়নার পাশে নখ, লিখি নখদর্পণ

ফেসবুক মন্তব্য