বিসর্জন

অরিন্দম গঙ্গোপাধ্যায়

নীল এস্রাজখানি কালো ঘেরাটোপে ঢেকে
ঈশ্বরী বুঝি নেমে গেল বেনোজলে।
কাঁধের জড়ুল রক্তরাঙা মেঘের মতন, অবাধ্য কেশরে খড়
অথচ তখনো মেঘ ঝুলে ছিল, ঝাড়বাতি-সাজে।


জল তার জ্ঞাতি, তারা অতীতে কখনো একসাথে
ঈশ্বরীর চিবুকের ডৌলটিতে ঝরে পড়েছিল টুপটাপ
অথবা কপোল বেয়ে স্তনাগ্রচূড়ায়, আরো নিচে
বাঁ পায়ের কনিষ্ঠায় চুমো দিয়ে মাটিতে গিয়েছে মিশে।
কতবার শ্যাম-বাংলায় বৃষ্টিদিনে খাঁজকাটা চালতা পাতায়
দুটি শিরা বেয়ে লুকোচুরি সেরে মাটিতে ঝরেছে তারা।


অথচ এখন মেঘে বিস্মৃতির মেদুর কাপাস,
নিচের হিংসুক জলে এতদূর গভীর অনীহা -
লবণাম্বুরাশি মেঘছায়ালেশহীন, কপিশবর্ণের,
দু'পারের উত্সব-কোলাহলে দুলে ওঠে, অঘ্রাণের পড়ন্ত বেলা।
আনূপ ঈশ্বরী তবু জলকেই বেছে নিল, অলকার পথে ।

ফেসবুক মন্তব্য